Breaking News

মিঠাই – নিজের গোপাল সোনাকে চিনতে পারলো ! মা-ছেলের মিল দেখে আবেগে ভাসছেন ভক্তরা……

জি বাংলার জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক হল ‘মিঠাই’। এই ধারাবাহিক সকলের কাছে বেশ জনপ্রিয়। প্রথম থেকেই সকলের মন ছুঁয়ে গিয়েছিল, তাই তো টানা ৫২ সপ্তাহ ধরে টিআরপি তালিকায় সবার প্রথমে ছিল মিঠাই। বর্তমানে টিআরপি তলানিতে ঠেকলেও, ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা একই রয়েছে। ধারাবাহিকের কাহিনীর ভোলবদল ঘটলেও, মিঠাই দেখতে আগ্রহী অগুন্তি দর্শক।

আসলে সকলেই পছন্দ করে মিঠাই-সিডের রসায়নটা। মিঠাই এর মৃত্যু দেখিয়ে যখন মিঠিকে আনা হয়, তখন থেকেই দর্শকরা খোঁজ করেছেন মিঠাইকে। মিঠাই কোথায় ? মিঠাই কি আর ফিরবে না? মিঠি আসার প্রথমদিন থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত সকলেই খোঁজ করেছেন মিঠাই-এর। দর্শকদের বিপুল চাহিদার কথা মাথায় রেখে ধারাবাহিক নির্মাতা মিঠাইকে সামনে নিয়ে এসেছে। মিঠাইকে দেখে দর্শকরা আবেগে ভাসছেন।

মিঠাই এসেছে, সাথে মিঠাইয়ের মেয়ে মিশি, কিন্তু মিঠাইয়ের স্মৃতি নেই। সে সব ভুলে গেল, চিনল না সিদকে, না শাক্যকে। আর তার পর দর্শকদের মনে আবারও প্রশ্নের ভিড়, তাহলে কি শাক্যকে চিনবেন না? কবে দেখবেন সবজি আর মিষ্টির সমাহার?

অবশেষে উত্তর এল। মিঠাই যখন মিষ্টিকে খুঁজতে যায়, সিডের ঘরে, সে শাক্যকে দেখে। অচেনা ছেলেটার প্রতি একটা টান অনুভব করে, মাতৃস্নেহের এই টান। শাক্যকে জড়িয়ে ধরে ডাকে ‘গোপাল সোনা’। মিঠাইয়ের অভিব্যক্তি দেখে মনে হল মিঠাই বছরের পর বছর ধরে এই টানটান অনুভূতি খুঁজছে। তাহলে কি মিঠাইয়ের স্মৃতি ফিরে আসবে? আগামী পর্বে বোঝা যাবে।

তবে এত সুন্দর ম্যাচ দেখে ভক্তরা দারুণ খুশি। তারাও এই দৃশ্যের জন্য অনেকক্ষণ অপেক্ষা করেছিল। তাই বলে, ‘মিষ্টি-মিষ্টির মাধুর্য দেখে শাক্য-মিষ্টির দৃশ্য দেখার জন্য ব্যাকুল হয়েছিলাম। প্রত্যাশার চেয়েও বেশি পেয়েছি। এছাড়া, অনেকে সৌমিত্রিশার অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন, তারা কল্পনাও করতে পারবেন না যে একজন ব্যক্তি দুটি চরিত্রে অভিনয় করছেন, সম্পূর্ণ ভিন্ন অভিব্যক্তি সহ। তারা ভাবতে পারে না যে মিঠাই-মিঠি একই ব্যক্তি। শুধু অভিনয় আলাদা।

About Shariful Islam

Check Also

Hindi Web Series: ভারতী ঝাঁ-এর লোভনীয় অভিনয়ে মন কেড়েছে দর্শকদের

আজকাল ওয়েব সিরিজ মুভি সিরিয়ালের সাথে গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রিতে একটি নতুন সংযোজন। আসলে প্রযুক্তির সাথে তাল …