Breaking News

‘সেই আগের তেজ, আগুন জ্বলা চোখের চাউনি’, ‘এক্কা দোক্কা’তে পোখরাজের স্বার্থে এবার ধারাবাহিক থেকে প্রতীককে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘একা ডক্কা’তে এসেছে নতুন মোড়। পোখরাজ-রাধিকার জীবনে এসেছে প্রতীকী। সিরিজে প্রতীকের প্রবেশ এই সিরিজটিকে আরও প্রাণবন্ত করেছে। আমরা জানি,এই সিরিয়াল দুই পরিবারের শত্রুতার মাঝে দুই পরিবারের প্রেম নিয়ে শুরু হয়েছিল ।সিরিয়ালের প্রধান চরিত্রে ‘রাধিকার’ চরিত্রে সোনামণি সাহা এবং ‘পোখরা’ চরিত্রে সপ্তর্ষি মৌলিকিকে দেখা যাচ্ছে ।

সিরিজটি শুরু হয়েছিল রাধিকার পরিবার এবং পোখরাজের পরিবারের মধ্যে শত্রুতা দেখানোর মাধ্যমে । রাধিকা ও পোখরাজ জুটি দর্শকদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। তবে দুই পরিবারের প্রেম, ‘এক্কা দোক্কা’ গল্পটি দর্শকদের কাছে বেশ জনপ্রিয়তা পায়।

‘রাধিকার’ চরিত্রে সোনামণি সাহা এবং ‘পোখরা’ চরিত্রে সপ্তর্ষি মৌলিকিকে দেখা যাচ্ছে সিরিয়ালের প্রধান চরিত্রে। রাধিকার পরিবার এবং পোখরাজের পরিবারের মধ্যে শত্রুতা দেখানোর মাধ্যমে সিরিজটি শুরু হয়েছিল। ধীরে ধীরে দর্শকদের কাছে প্রিয় হয়ে ওঠে রাধিরাজ জুটি।

এদিকে ধারাবাহিকে অভিনেতা প্রতীক সেনের এন্ট্রি নানা চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। এর আগে মোহর সিরিয়ালে সোনামণি সাহা ও প্রতীক সেনের জুটি দর্শকদের খুব পছন্দ হয়েছিল। সে সময় সবাই ‘সোনাটিক’ জুটি নিয়ে কথা বলছিলেন। ‘মোহর’ শেষ হওয়ার পর দর্শকদের একাংশ মোহর জুটিকে আবার একসঙ্গে দেখতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তা হয়নি, ‘সাহেব চিঠি’তে ‘প্রতীক’ কামব্যাক করেছেন এবং ‘এক্কাদোক্কা’ ছবিতে কামব্যাক করেছেন ‘সোনামণি সাহা’।

অভিনেতা প্রতীককে আবার ‘এক্কা ডোক্কা’-তে ডক্টর গুহর চরিত্রে দেখতে পেয়ে দর্শকরা খুবই খুশি। কিন্তু তখন দর্শকরা বিভক্ত হয়ে পড়েন। একটি গোষ্ঠী দাবি করেছে যে রাধিকারকে ডক্টর গুহরের সাথে জুটি করা উচিত এবং সিরিজে পোখরাজ নয়। অর্থাৎ আলতা ফরিং-এর মতো পোখরাজকে ভিলেন হিসেবে দেখানো উচিত এবং প্রতীক সেনকে নায়ক করা উচিত। অন্যদিকে, এই দাবির তীব্র বিরোধিতা করছেন রাধিকা-পোখরাজ দম্পতির ভক্তরা।

‘সোনাটিক’ জুটির একজন ভক্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, “ওই পুরোনো তেজ,, আগের মতোই সেই কণ্ঠ,,, দুজনেরই পলকহীন চোখ,,, এক্কাডোক্কায় একদম অন্যরকম মোড়,,, মনে হচ্ছে। সেই পোখরাজের দুই মামা থেকে বেরিয়ে আসা ভাল।” এই ট্রেক”।

About Shariful Islam

Check Also

ময়ূরী’র পেট থেকে কথা বের করলেন রচনা বাড়িতে নিষেধ সত্ত্বেও কার জন্য রাঁধেন মাংস?

দিদি নম্বর ওয়ানে হাজির ইচ্ছে পুতুলের টিম। জমিয়ে চলল আড্ডা। কথা কথায় সামনে এল নানান …